হরিণাকুন্ডুতে দু‘জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম বাড়িঘর ভাঙচুর, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুতে পূর্ব শত্রুতার জেরে সিরাজুল মন্ডল ও আক্কাস আলী নামে দু‘জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। এ সময় অন্তত ছয়টি বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়নের দরিবিন্নি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ওই গ্রামের মহন ডাক্তার ও আবুল মন্ডল গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহন ডাক্তার গ্রুপের ফরমান মন্ডলের ছেলে সিরাজুল মন্ডল (৪৫) গ্রামের বাজারে গেলে তাকে একা পেয়ে আবুল মন্ডলের ছেলে আনোয়ার ও হিটলার মেম্বরের নেতৃত্বে ১০/১২জন বেঢড়ক পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। এ সময় তার চাচাতো ভাই আক্কাস আলী তাকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর করা হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে ঘটনার পর উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে আহতদের লোকজন প্রতিপক্ষ আবুল মন্ডল গ্রুপের হিটলার মেম্বর, মাসুদ রানা বাটুল, বাবুল,আনোয়ার, বহুল ও মহাসিনের বাড়ি ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য হিটলার জানান, আমার নেতৃত্বে হামলার কথা সঠিক নয়। আমি গত কয়েকদিন ধরে ঢাকায় ছিলাম। আজ দুপুরে বাড়িতে ফিরে বাসায় ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় এই গন্ডগোলের খবর পেয়ে বাজারে যাই। পরে প্রতিপক্ষরা আমার বাড়িও ভাঙচুর করেছে। হরিণাকুন্ডু থানার ওসি আবদুর রহিম মোল্লা জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে ওই এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।