লন্ডন হাই কমিশনে যথাযথ মর্যাদায় মুজিব বর্ষ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন

লন্ডন, ০৭ মার্চ ২০২১-বাংলাদেশ হাইকমিশন, লন্ডন আজ যথাযোগ্য মর্যাদায় মুজিব বর্ষ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন করেছে। যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম সকালে হাইকমিশন প্রাঙ্গণে মিশনের কর্মকর্তাদের নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচির সূচনা করেন। এরপর এ উপলক্ষে দেয়া মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র বাণী পাঠ করা হয়।
অনুষ্ঠানে হাইকমিশনার ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন, “বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই ঐতিহাসিক ভাষণ ছিল মূলত বাঙালি জাতির স্বাধীনতা সংগ্রামের বীজমন্ত্র ও মুক্তির সনদ। ইউনেস্কো বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণটিকে ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে এর শ্রেষ্ঠত্ব ও গুরুত্ব আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। আজ হতে শতবর্ষ পরেও এই ভাষণ সব দেশের সকল নিপীড়িত ও স্বাধীকারকামী মানুষের মুক্তির দিক-নির্দেশনা হয়ে থাকবে।”
দূতাবাসের কর্মকর্তা ও কর্মচারিবৃন্দ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থবিধি মেনে এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।
আগামিকাল ৮ মার্চ সোমবার বাংলাদেশ হাইকমিশন, লন্ডন বিকেল ৩টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা) বঙ্গবন্ধুর এই ঐতিহাসিক ভাষণের আইরিশ, স্কটিশ এবং ওয়েলশ অনুবাদ প্রকাশ উপলক্ষে এক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। মান্যবর হাইকমিশনার এই ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে (লিংক যঃঃঢ়ং://নযপষড়হফড়হ-ড়ৎম-ঁশ.ুড়ড়স.ঁং/ল/৯১২৩৭০৭৭৬৭৬) যোগ দেয়ার জন্য সবাইকে আন্তরিক আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।