রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা সভাপতি, কুমার বিশ্বজিৎ সাধারণ সম্পাদক

বিজ্ঞাপন

প্রয়াত সংগীতশিল্পীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার সভাপতিত্বে শুরু হয় সভা। স্বাগত বক্তব্য দেন কুমার বিশ্বজিৎ। তাঁদের বক্তব্যের পর হাসান আবিদুর রেজা জুয়েলের সঞ্চালনায় সংগঠনের সব সদস্যের কাছে গত ছয় মাসের সাংগঠনিক কার্যক্রম তুলে ধরা হয়। পরে সংগঠনের উপদেষ্টা রফিকুল আলম ২০২১-২০২৩ সালের জন্য দুই বছর মেয়াদি ২৩ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটির নাম প্রস্তাব করেন। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নতুন কার্যনির্বাহী কমিটি আগামী দুই বছরের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করে।

সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা

সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা 

রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে সভাপতি, তপন চৌধুরী ও সামিনা চৌধুরীকে সহসভাপতি এবং কুমার বিশ্বজিৎকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৩ সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি দায়িত্ব গ্রহণ করে। এই কমিটির অন্য দায়িত্বপ্রাপ্তরা হলেন হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল (সহসাধারণ সম্পাদক), জয় শাহরিয়ার (সাংগঠনিক সম্পাদক), চন্দন সিনহা (অর্থ সম্পাদক), সোমনূর মনির কোনাল (প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক), কিশোর দাস (সংস্কৃতি সম্পাদক), সাব্বির জামান (প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক), মইদুল ইসলাম খান (আইন ও আন্তর্জাতিক সম্পাদক), ইউসুফ আহমেদ খান (দপ্তর সম্পাদক)।

সিঙ্গার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের কার্যকরী সদস্যরা হলেন রবি চৌধুরী, আঁখি আলমগীর, অণিমা রায়, আলিফ আলাউদ্দীন, সমরজিৎ রায়, পিন্টু ঘোষ, সন্দীপন দাস, লাবিক কামাল গৌরব, ইলিয়াস হোসাইন, সাজিয়া সুলতানা পুতুল ও সাহস মোস্তাফিজ। পাশাপাশি ১৭ সদস্যবিশিষ্ট উপদেষ্টা কমিটিও ঘোষণা করা হয়। এই কমিটিতে আছেন ফেরদৌসী রহমান, সৈয়দ আব্দুল হাদী, নিয়াজ মোহাম্মদ চৌধুরী, খুরশীদ আলম, রফিকুল আলম, ফকির আলমগীর, লিনু বিল্লাহ, শাহীন সামাদ, রথীন্দ্রনাথ রায়, পাপিয়া সারোয়ার, ফেরদৌস আরা, তপন মাহমুদ, ইয়াকুব আলী খান, ফাতেমাতুজজোহরা, আবিদা সুলতানা, কিরণ চন্দ্র রায় ও শাফিন আহমেদ।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কমিটির সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশের সব সংগীতশিল্পীর আর্থিক ও নৈতিক অধিকার আদায়ে সংগঠন নিরলসভাবে কাজ করে যাবে—এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।