ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে ২০১৯ সালে বায়ু দূষণের কারণে তিন লাখের বেশি মানুষ মারা গেছে। নতুন এক রিপোর্টে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, বায়ুর সাথে নানা ধরনের অতিক্ষুদ্র কণা মেশার কারণে ইউরোপের বায়ু সেখানকার মানুষের জন্য প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পরিবেশ বিষয়ক তথ্য প্রদানকারী স্বাধীন সংস্থা ‘ইউরোপীয় এনভায়রনমেন্ট এজেন্সি’ আজ (সোমবার) এই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বায়ুদূষণের গ্রহণযোগ্যমাত্রা সম্পর্কিত যে দিকনির্দেশনা দিয়েছিল তা মেনে চলার ব্যাপারে যদি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো সবাই এক মত হতো তাহলে এই মৃত্যুর শতকরা ৫৮ ভাগ এড়ানো যেত। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দিক নির্দেশনা অনুযায়ী- প্রতি ঘনমিটার বায়ুতে সর্বোচ্চ ৫ মাইক্রোগ্রাম দূষণ থাকতে পারে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে জার্মানিতে বায়ু দূষণে মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশি। এক বছরের সেখানে বায়ু দূষণের ফলে অকালে মৃত্যুবরণ করেছে ৫৩ হাজার ৮০০ মানুষ। এর পরেই রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে বায়ু দূষণের ফলে অকালে ৪৯ হাজার ৯০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

বায়ু দূষণে মৃত্যু হারের দিক দিয়ে ইতালি তৃতীয় এবং স্পেন চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। ইতালিতে এক বছরে মারা গেছে ২৯ হাজার ৮০০ এবং স্পেনে মারা গেছে ৩০ হাজার ৩০০ মানুষ। তবে জনসংখ্যার মাথাপিছু হারে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে পোল্যান্ডে। সেখানে বায়ুদূষণে এক বছরে মারা গেছে ৩৯ হাজার ৩০০।

২০১৮ সালে বায়ু দূষণের কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নে মারা গেছে তিন লাখ ৪৬ হাজার মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here