ভোলা ও চরফ্যাশন পৌর নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৭ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন

ভোলা জেলা সংবাদদাতা। ভোলা ও চরফ্যাসন পৌর নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে উৎসবমুখর পরিবেশে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীগণ মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।
মঙ্গলবার দুই পৌরসভায় মেয়র পদে মোট ৯ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ৭৮ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।
ভোলা পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী বর্তমান মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, বিএনপির হারুন অর রশিদ ট্রুম্যান, বিএনপির বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইয়ারুল আলম লিটন, বাংলাদেশ ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এর আগে দলীয় সমর্থক ও ভোটরদের নিয়ে পৃথক দোয়া মোনাজাতের আয়োজন করেন মেয়র প্রার্থীরা।
ভোলা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আলা উদ্দিন আল মামুন জানান, ভোলায় মেয়র পদে মোট ৪ জন ও কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৮ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।
এ পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ৩৬ হাজার ৯০৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৬৫৯ জন ও মহিলা ভোটার ১৮ হাজার ২৪৫ জন। ভোলা পৌরসভায় মোট ২০টি ভোট কেন্দ্রে ১২২টি বুথে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
অপরদিকে চরফ্যাসন পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী এস.এম মোশেদ, বিএনপির হুমায়ুন কবির সিকদার, বাংলাদেশ ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের মাওলানা মো. ইউসুফ, জাতীয় পার্টির এটি এম মাসুদ চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর মো. শরীফ নিবার্চন অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।
চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, চরফ্যাশনে মেয়র পদে মোট ৫ জন, কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।
এ পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৫৮৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ৩২৪ জন ও মহিলা ভোটার ১৩ হাজার ২৫৯ জন। চরফ্যাশন পৌরসভায় মোট ১৭টি ভোট কেন্দ্রে ৯১টি বুথে ভোট গ্রহণ হবে।
নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী পঞ্চম ধাপে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ভোলা পৌরসভা ও চরফ্যাশন পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই এর শেষ দিন ৪ ফেব্রুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ দিন ১০ ফেব্রুয়ারি এবং প্রতীক বরাদ্ধ ১১ ফেব্রুয়ারি।