রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে অংশ নিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন লন্ডনে পৌঁছেছেন(এএফপি)।

স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার রাত ১০টার কিছু আগে বাইডেনকে বহনকারী উড়োজাহাজটি লন্ডন স্ট্যানস্টেড বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আছেন ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন।

আজ রোববার রানি এলিজাবেথের কফিনে বাইডেন শ্রদ্ধা জানাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। এ ছাড়া তিনি আজ ব্রিটেনের নতুন রাজা তৃতীয় চার্লসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

কাল সোমবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া। এদিন বেলা ১১টার দিকে লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবেতে এ অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া হবে।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানেরা যুক্তরাজ্যে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে অনেকে দেশটিতে পৌঁছে গেছেন।

যুক্তরাজ্য সফরকালে দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাসের সঙ্গে বাইডেনের একটি বৈঠক করার কথা ছিল। কিন্তু পরিকল্পিত বৈঠকটি বাতিল করা হয়েছে। বৈঠকটি কেন বাতিল করা হয়েছে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ও কার্যালয় ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট জানিয়েছে, ট্রাস ও বাইডেন আগামী বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে একটি পূর্ণ দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন। রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান হিসেবে এটি হবে তাঁদের প্রথম সাক্ষাৎ।

যোগ দিচ্ছেন চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং কিশান

চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং কিশান আগামীকাল সোমবার ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেবেন। গতকাল শনিবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। কূটনৈতিক টানাপড়েনকে কেন্দ্র করে রানির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে চীনা কর্মকর্তাদের নিষিদ্ধ করার পর এ ঘোষণা এলো। খবর এএফপির।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাও নিং এক বিবৃতিতে বলেন, ‘যুক্তরাজ্য সরকারের আমন্ত্রণে ১৯ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্ট সি চিনপিংয়ের বিশেষ প্রতিনিধি ওয়াং কিশান লন্ডনে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেবেন’।

ওয়েস্টমিনস্টার হলে রানির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের আনুষ্ঠানিকতায় চীনের সরকারি প্রতিনিধিদলকে নিষিদ্ধ করার পর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানে ওয়াংয়ের যোগদানের ঘোষণা দেয়া হলো।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, এর আগে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সের স্পিকার লিন্ডসে হলি রানির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে চীনা প্রতিনিধিদলের উপস্থিতির অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেন। বেশ কয়েকজন ব্রিটিশ এমপির ওপর চীনা নিষেধাজ্ঞার প্রতিক্রিয়ায় বেইজিংয়ের প্রতিনিধিদলকে অনুষ্ঠানে নিষিদ্ধ করা হয়।

এ ঘটনায় গত শুক্রবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাও নিং বলেন, যুক্তরাজ্যের উচিত কূটনৈতিক সৌজন্য ও সদয় আতিথ্য- দুটোই বজায় রাখা।