কেউ ভালো কাজ করলে আমরা তাকে চিনি, তার সম্পর্কে জানার চেষ্টা করি এবং মনে রাখিও। আসলে এই কাজের মাধ্যমেই একজন মানুষের আসল কৃতিত্ব এবং মর্যাদার বহিঃপ্রকাশ ঘটে। সেটা হতে পারে সমাজ কিংবা রাষ্ট্রের জন্য কল্যাণকর এমন যেকোনো কাজ। তবে বৃহৎ অর্থে বলতে গেলে শুধু দেশের জন্য নয় কেউ কেউ আবার দেশের গণ্ডি পেরিয়ে পরিচিতি পান বিশ্ব দরবারেও।

এমনি একজন আফফান উর রহমান হাবিব। যিনি অনেক চরাই-উৎরাই পার করে দেশের সীমানা অতিক্রম করে বিদেশের মাটিতেও নিজের আত্মবিশ্বাস এবং সৃজনশীলতাকে কাজে লাগিয়ে সুযোগ পেয়েছেন ফায়ারফক্স সফটওয়্যারে! কাজ করছেন সিনিয়র ডাটা এনালিস্ট হিসেবে। মজার বিষয় হচ্ছে, প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়ন করছে পৃথিবীর বহু মানুষ। হাবীব বললেন, আমি বিশেষ করে যারা বাংলাদেশ থেকে আসেন তাদের এখানকার মার্কেটের সাথে পরিচিত করানোর জন্য আমাদের সেন্টারের নানা প্রশিক্ষণ নিতে উদ্বুদ্ধ এবং সহযোগিতাও করি কারণ এরমাধ্যমে তারা বিভিন্ন কাজের সুযোগও পায়।

২০১৮ সালে তিনি নর্থওয়েস্টার্ন হাই স্কুল থেকে হাই স্কুল ডিপ্লোমা শেষ করেন। পরবর্তীতে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগ এর উপর ইউনিভার্সিটি অফ ম্যারিল্যান্ড থেকে বিজ্ঞান বিষয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রি অর্জন করেন।

চাকরির পাশাপাশি একজন ক্রীড়াবিদও তিনি। ২০১৯ সাল থেকে আবাহনী সাপোর্টিং গ্রুপে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি হিসেবে আছেন। একজন ভালো ক্রিকেট ব্যাটসম্যান। ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলা অরিওর ক্রিকেট ক্লাব ও ভার্জিনিয়াতে হারন্ডন বাংলা ক্রিকেট ক্লাবে খেলতেন। তাছাড়া তিনি প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং পরিচালক হিসেবে নেতৃত্ব দিয়েছেন ডি.সি রেগিমেন্ট স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে।

তার এসব কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য অর্জন করেছেন বিভিন্ন সনদ এবং সম্মাননা। সফটওয়্যার সিলিনিয়াম এন্ড কোয়ালিটি এ্যাসুরেন্স এর উপর এজ্যাইল ওয়ান টেক ফায়ারফক্সের জন্য সনদ প্রাপ্ত হন। ২০২১ সালে সিকিউরিটি+ কম্পটিআইএ ডাউনয়ার’স গ্রোভ থেকে অনলাইন সার্টিফিকেট অর্জন করেন।

বাংলাদেশের হয়ে বিদেশের মাটিতে বিভিন্ন ধরনের কৃতিত্বপূর্ণ কাজের মাধ্যমে দেশের মর্যাদাকে অক্ষুণ্ণ রেখে চলেছেন আফফান উর রহমান হাবিব। তার লক্ষ্য নিজ কর্মস্থলে আরও বেশি বাংলাদেশী তরুণদের কাজের সুযোগ সৃষ্টি করা।