নওগাঁয় “মুজিববর্ষ সেরা কন্ঠ” গ্র্যান্ড ফিনালে মোকাররাবিন আশফি চ্যাম্পিয়ান

নাদিম আহমেদ অনিক, নিজস্ব প্রতিনিধি: সারা দেশে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বছর জুড়ে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করা হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় নওগাঁ জেলা প্রশাসন নানা রকমের ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। তারই অংশ হচ্ছে মুজিববর্ষ সেরা কণ্ঠ। তরুণ প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শ সম্পর্কে জানাতে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে এবং তাদের সৃজনশীল প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে নওগাঁয় “মুজিববর্ষ সেরা কন্ঠ, ২০২০ এর আয়োজন করা হয়।
জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শুক্রবার রাতে সদর উপজেলা হল রুমে ৮জন প্রতিযোগিতা নিয়ে এই “মুজিববর্ষ সেরা কন্ঠ, ২০২০ এর গ্র্যান্ড ফিনাল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগীতায় জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার মোকাররাবিন আশফিকে “মুজিববর্ষ সেরা কন্ঠ” চাম্পিয়ন ঘোষনা করা হয়। এছাড়াও দ্বিতীয় হন পত্নীতলা উপজেলার মাথিয়াস সরেন, সদর উপজেলার নুসরাত মাহি তৃতীয় ও মহাদেবপুরের সৈয়দ ফারিহা জাহসিন চতুর্থ স্থান অর্জন করে ।এসময় বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন খুরশিদ আলম, ফাতেমা তুজ জোহরা ও মিল্টন খন্দকার।
পরে প্রধান অতিথি হিসেবে “মুজিববর্ষ সেরা কন্ঠ” চাম্পিয়ন মোকাররাবিন আশফিকে ৫০হাজার টাকার চেক, সার্টিফেকেট ও ক্রেষ্ট তুলে দেন খাদ্যমন্ত্রী বীরমুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। এছাড়াও দ্বিতীয় মাথিয়াস সরেনকে ২০হাজার টাকা, নুসরাত মাহিকে ও সৈয়দ ফারিহা জাহসিনকে ১৫হাজার টাকার চেক তুলে দেওয়া হয়।
জেলা প্রশাসক হারুন অর রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার, ছলিম উদ্দিন তরফদার, আনোয়োর হোসেন হেলাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রকিবুল আকতার সহ অন্যান্য কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। উল্লেখ্য, এই প্রতিযোগীতায় জেলার ১১টি উপজেলা প্রায় ৫০০জন প্রতিযোগীরা অংশ গ্রহন করে।