দক্ষিণ খুরমা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আলী হোসেন মানিক

ছাতক প্রতিনিধি::ছাতকের দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ছাতক উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হোসেন মানিক। তিনি দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের বাসিন্দা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেন- তিনি মা’দক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ মুক্ত, দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করে ডিজিটাল ইউনিয়নে পরিনত করার লক্ষে, তিনি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগনের সামনে নিজেকে উপস্থাপন করেছেন।
আলী হোসেন মানিক ছাত্রজীবনে সিংচাপইড় আলিম মাদ্রাসার ভিপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া বিএনপির একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে এলাকায় তার বেশ পরিচিতি রয়েছে।
প্রতিবেদকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ কালে তিনি নির্বাচিত হলে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা, মা’দকমুক্ত একটি আধুনিক পরিকল্পিত শিক্ষাবান্ধব ডিজিটাল ইউনিয়ন জনগণকে উপহার দেবেন, একটি ডিজিটাল মডেল ইউনিয়ন গড়ে তোলার অঙ্গীকারে আগামি ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিধন্ধিতা করবেন। অসহায় মানুষের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে তাদের কষ্ট এবং বিভিন্ন সামাজিক প্রতিবন্ধকতা গরিব-ধনির তারতম্য খুব কাছ থেকে উপলব্ধি করেছেন। তাই যদি তিনি সুযোগ পান বিশেষ করে সমাজের অসচ্ছল অসহায় গরিব, বিধবা, বয়স্ক এবং প্রতিবন্ধী মানুষের জন্য কাজ করবেন। গরিব-ধনীর ভেদাভেদ কে সমাজ থেকে বিলুপ্ত করার লক্ষ্যে বিশেষ ভূমিকা রেখে একটি মানব ইউনিয়নে রূপান্তরিত করবেন।
প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে তিনি আরো বলেন, বিগত দিনে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে ইউনিয়নবাসী উন্নয়নের নানা আশা-আকাঙ্খা নিয়ে বিভিন্ন প্রার্থীকে ক্ষমতায় সমাসীন করেছেন। কিন্তু নাম সর্বস্ব উন্নয়ন দেখিয়ে নিবার্চিতরা শুধু নিজেদের আখের গুছিয়েছেন।
তিনি এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন-যদি আমি নির্বাচিত হই আমি আমার দেয়া প্রতিশ্রুতি পালন করব ও অন্যান্য ইউপি থেকে এগিয়ে থাকা চরদুয়ানী ইউনিয়নকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে ইউনিয়নের প্রাণ হচ্ছে ওয়ার্ডের সদস্যগন তাদের সাথে সু-সম্পর্ক ও সুসমবন্ঠন এবং তাদের অধিকার নিশ্চিত করে মিলেমেশে একটি ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্রমুক্ত, মা’দকমুক্ত আধুনিক ডিজিটাল মডেল ইউনিয়ন গড়তে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করে যাবো।
এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, একজন উন্নয়নের রুপকার, মেধাবী, ভদ্র ও নম্র মানুষ দীর্ঘ দিন থেকে ইউনিয়নের অসহায় মানুষের সহযোগীতা করে আসছেন এবং অসহায় ও গরীব মানুষের আপনজন হয়েছেন।
এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনে ও রয়েছে তার প্রচুর অবদান। আমরা আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এরকম একজন মানুষকে চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চাই। এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন জনগণ।
উন্নয়ন বঞ্চিত দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে রুপান্তরিত করার মাধ্যমে ইউনিয়নবাসীর আশা-আকাঙ্খা পূরণে তিনি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে বিভিন্ন গ্রামে বাজারে গনসংযোগ করছেন বলে প্রতিবেদকে জানান। এরজন্য তিনি সকলের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন।