তিন নারী উদ্যোক্তার আয়োজনে পোশাক ও জুয়েলারি প্রদর্শনী

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | রাজধানীর গুলশানের একটি রেস্টুরেন্টে শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের নিজস্ব উৎপাদিত পণ্য নিয়ে একটি প্রদর্শনীর অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রদর্শনীতে বেশ কয়েকটি উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। করোনার কারণে দীর্ঘদিন এসব নারী উদ্যোক্তারা ব্যবসায়িক ক্ষতির মধ্যে ছিলেন। এই প্রদর্শনী তাদের মধ্যে নতুন করে আশার সঞ্চার করেছে বলে জানিয়েছেন অংশ নেওয়া নারী উদ্যোক্তারা।
উদ্যোক্তা বলেন, বাংলাদেশে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার যথেষ্ট অভাব রয়েছে। তার উপর করোনা মহামারী আসার পর ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের মধ্যে চরম হতাশার তৈরি হয়েছিল। সেই হতাশা থেকে বেরিয়ে আসার জন্যই ‘শরীস সাফায়ার’ নামে একটি টিম এই প্রদর্শনী আয়োজন করে।
শরীস সাফায়ার টিমের ৩ সদস্য রাবেয়া খাতুন, সুমনা রহমান ও সানজিদা অরনি জানান, তাদের এই আয়োজনে ১৪ জন ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তা অংশ নেন। এখানে প্রত্যেকে নিজস্ব পণ্য প্রদর্শনের সুযোগ পেয়েছেন। প্রদর্শনীতে বেচাকেনা হবার ফলে তাদের ব্যবসাও ভালো হয়েছে। আগামীতে এ সংগঠনটি আরও বড় পরিসরে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য প্রোগ্রাম হাতে নেবে।
তারা মনে করেন, বেসরকারিভাবে উদ্যোগ নিলে নারী উদ্যোক্তারা সফল হতে পারবে না। এজন্য প্রয়োজন সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা।
প্রদর্শনীতে অংশ নেওয়া অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো- সানাহ শরিফ, মারভ বাই নাজিয়া, আবহমান বাই রাফিয়া, লা ডিমোরা, মেরি নেশন, লাহা, সুজানাজ, সোনিয়া মমতাজ, হ্যাভেনলি ডেজার, রেড চেরি, তাইয়াবাজ ক্লোজেট, সামার বাই সানজিদা, জাইয়ানা বাই সুমনা, এফএসকে ফ্যাশন, হোয়াইট ব্লজম, সুজানাজ ক্লোজেট, মহুয়া শরফুদ্দিন, হেনা ও শারকিয়া।