টেকনাফ আলোচিত মানব পাচারকারী দালাল সেই সাইফুল গ্রেফতার

আজিজ উল্লাহ, টেকনাফ: টেকনাফের বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে মানব পাচার মামলার আসামী ও চিহ্নিত মানব পাচারকারী দালালকে আটক করেছে।
বৃৃৃহস্পতিবার(২৫ ফেব্রুয়ারী) রাতের প্রথম প্রহরের দিকে টেকনাফ বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বাহারছড়া নোয়াখালী জুম্মাপাড়ায় অভিযান চালিয়ে মানব পাচার মামলার পলাতক আসামী আব্দুল আলীর পুত্র সাইফুল ইসলাম (২৬) কে আটক করে। তার বিরুদ্ধে গত বছরের ১০ ফেব্রুয়ারী রাত পৌনে ৮টারদিকে ১০৯জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুদের প্রলোভন দেখিয়ে ৩টি ইঞ্জিন নৌকাযোগে মালয়েশিয়া পাঠানোর সময় সেন্টমার্টিন ছেঁড়াদ্বীপের ১০নটিক্যাল মাইল দূরে ট্রলার ডুবির ঘটনায় ১৫জনের করুণ মৃত্যু ঘটে। অবশিষ্টরা কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সহায়তায় প্রাণে রক্ষা পায়। উদ্ধারকৃত ভিকটিমেরা ধৃত এই দালালের নাম স্বীকার করায় তৎকালীন তার বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা নং-৩০/১৪০, তারিখ-১১-০২-২০ইং,ধারা-৩০২/৩৪ পেনালকোড তৎসহ ২০১২ইং সালের মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ৭/৮ মামলার আসামী ছিল। এরপর সে পলাতক ছিল। আটকের দিন রাতেও সে মালয়েশিয়ায় পাচারের জন্য লোকজন জড়ো করার সংবাদ পেয়ে অভিযান চালাতে গিয়েই মানব পাচারকারী গডফাদারকে আটক করতে সক্ষম হয়।
এই ব্যাপারে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ জানান,দীর্ঘদিন পর পুলিশ মানব পাচারকারী এই গডফাদারকে মানব পাচারের প্রস্তুতিকালে আটক করতে সক্ষম হয়। তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।