জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ ২৪ সেপ্টেম্বর

কোভিড-১৯ এর কারণে মধ্যে এক বছর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে সরাসরি যোগ দিতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবার জাতিসংঘের ৭৬তম অধিবেশন স্বল্প পরিসরে হলেও তাতে যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে যাচ্ছেন তিনি।

দলের প্রধানকে বরণ করে নেওয়ার জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুর দেড়টায় জেএফকে এয়ারপোর্টে পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত থেকে প্রিয় নেত্রীকে স্বাগত জানাবেন।

ড. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বৈশ্বিক মহামারির কারণে এবার অনেক কর্মসূচিই হবে সীমিত আকারে। প্রধানমন্ত্রী তিন থেকে চারবার জাতিসংঘের ভেতরে যাবেন। সেখানেও তার সঙ্গী হবেন হাতে গোনা কয়েকজন। ফলে এবার নেতাকর্মীরা সেই অর্থে হয়তো সরাসরি নেত্রীর সাক্ষাৎ পাবেন না। এর পরও তিনি আসছেন, এতেই আমরা খুব আনন্দিত।

আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৭৬তম অধিবেশনে সরাসরি ভাষণ দেবেন। একই দিন তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ভার্চুয়ালি ভাষণ দেবেন।

লাগোর্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেল উপস্থিত হয়ে নেতাকর্মীরা বড় স্ক্রিনে বঙ্গবন্ধুকন্যার ভাষণ ও দিকনির্দেশনা শুনবেন বলে জানিয়েছেন ড. সিদ্দিকুর রহমান। একই সঙ্গে একটি সংবাদ সম্মেলনেও প্রধানমন্ত্রীর অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এবার সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বক্তব্য দেওয়া ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি কর্মসূচিতে অংশ নেবেন।

এছাড়া ২৫ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্ক থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে ৭ দিনের মতো থেকে লন্ডন হয়ে বাংলাদেশে ফিরবেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here