কোভ্যাক্সের আওতায় টিকার বড় চালান পাচ্ছে বাংলাদেশ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমন। ছবি: সংগৃহীত

কোভ্যাক্সের আওতায় টিকার বড় একটি চালান বাংলাদেশ পাচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি জানান, আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলের মধ্যে বাংলাদেশ ২৪ কোটি টিকা পাচ্ছে। এ ২৪ কোটির মধ্যে বাংলাদেশের কেনা টিকা এবং কোভ্যাক্সের মাধ্যমে পাওয়া টিকাও অন্তর্ভুক্ত।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ডাচ-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিবিসিসিআই) আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, দেশে যে পরিমাণ টিকা এসেছে এবং আরও যা আসার অপেক্ষায় রয়েছে সব মিলিয়ে ২৪ কোটি টিকা লাইনে রয়েছে। আপাতত আমরা এটাতেই খুশি। টিকা স্থানীয়ভাবে উৎপাদন করা হবে জানিয়ে মোমেন বলেন, আমাদের ২৬ কোটি টিকা দরকার, ২৪ কোটি পাচ্ছি। এটা আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলের মধ্যে আসবে। যেহেতু আমরা টিকা লোকালি প্রডিউস করব আপাতত আমরা ২৪ কোটিতেই খুশি। মন্ত্রী প্রত্যাশা করেন এই টিকা আসলেই দেশের অধিকাংশ নাগরিককে টিকার আওতায় আনা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, আমরা ইতোমধ্যে ২ কোটি ৩০ লাখের বেশি টিকা দিয়েছি। যারা টিকা পাওয়ার যোগ্য, তাদের মধ্যে ২৬ থেকে ২৭ শতাংশ টিকা পেয়েছে। যুক্তরাজ্যের রেড লিস্টেড হিসেবে বাংলাদেশের নাগরিকদের দেশটিতে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিজ খরচে কোয়ারেন্টিন মানতে হচ্ছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী বলেন, ব্রিটিশরা বলে আমাদের ভ্যাকসিন কম। অথচ ১৩৫ টি দেশ ভ্যকসিনে আমাদের ধারে কাছেও নেই। তিনি আরও বলেন, ভারতে আক্রান্ত বেশি, মানুষ মারা গিয়েছে বেশি- অথচ ভারতকে করেনি, রেড লিস্টেড করেছে আমাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here