লক্ষ্য ১৪৩ রান। ১১৫ রানে আয়ারল্যান্ড মেয়েদের দলের ৮ উইকেট নেই। তবু স্বস্তিতে ছিল না বাংলাদেশ মেয়েদের দল। কারণ মারকুটে ব্যাটিংয়ে ম্যাচের মোড় পাল্টে দেওয়ার আভাস দিচ্ছিলেন আইমিয়ার রিচার্ডসন।

২৫ বল খেলে ৩৯ রান করে আইরিশদের জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন এই অলরাউন্ডার। কপাল ভালো বাংলাদেশের। রিতু মনির করা ইনিংসের ১৯তম ওভারের দ্বিতীয় বলে দুই রান নিতে গিয়ে আইমিয়ার রানআউট! ২৬ বল খেলে ৪০ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে দুর্ভাগ্যজনকভাবে। বাংলাদেশের মেয়েদের জয়ও অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যায় তাতে।

শেষ পর্যন্ত ইনিংসের ২ বল বাকি থাকতেই ১২৯ রানে অলআউট আইরিশ মেয়েরা। ১৪ রানের জয়ে শুরু হয় বাংলাদেশের মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। বাংলাদেশের তিন স্পিনার সালমা খাতুন, সানজিদা আক্তার ও নাহিদা আক্তারের স্পিনের সামনেই দাঁড়াতে পারেনি আয়ারল্যান্ড। ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়েছেন সালমা। সানজিদা ও নাহিদা ২৬ ও ২৩ রান দিয়ে পেয়েছেন ২টি করে উইকেট।

তবে ম্যাচসেরা হয়েছেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা। আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে নিগারের ৬৭ ও শামিমা সুলতানার ৪৮ রানের সৌজন্যে বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ১৪৩ রান করে। মন্থর শুরুর পর ডেথ ওভারে দ্রুত রান তোলায় আজ বাংলাদেশের মেয়েরা ‘এ প্লাস’ পেতে পারেন।

দলীয় ২৮ রানের সময় ওপেনার মুর্শিদা খাতুন ১৬ রান করে আউট হন। এরপর রানের গতি না বাড়লেও উইকেট পড়তে দেননি নিগার ও শামিমা। ১০ ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ছিল ১ উইকেটে ৫৩। সেখান থেকে শেষ ১০ ওভারে ৯০ রান যোগ করেছে বাংলাদেশ।

ইনিংসের ১৫তম ওভারে শামিমা ৪০ বল খেলে ৪৮ রান করে আউট হন। ৭টি চার ছিল তাঁর ইনিংসে। এরপর ইনিংসের বাকি পথটা নিগারের ব্যাটে চড়ে পার করেছে বাংলাদেশ। ইনিংসের শেষ বলে আউট হওয়া অধিনায়ক ৫৩ বল খেলে ৬৩ রান করেছেন। ১০টি চার ও ১টি ছক্কা ছিল নিগারের ইনিংসে।

দিনের আরেক ম্যাচে ‘এ’ গ্রুপের আরেক দল স্কটল্যান্ড ৭৯ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রকে। নেট রান রেটে এগিয়ে থেকে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে এখন স্কটিশরা। দুইয়ে বাংলাদেশ। সোমবার বাংলাদেশ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে খেলবে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে।